আদালত থেকে মাত্র পাওয়া – গাজীপুর নির্বাচনে নতুন সিডিউলে নির্বাচনে সমস্যা নেই : প্রধান বিচারপতি

গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচন নতুন সিডিউলে হলেও কোনো সমস্যা নেই বলে জানিয়েছেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন। আজ বৃহস্পতিবার গাজীপুর সিটি করপোরেশনের নির্বাচন স্থগিত করে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশের বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির প্রার্থীর করা দুটি আপিল আবেদনের শুনানি চলাকালে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদের নেতৃত্বে চার সদস্যের আপিল বিভাগের বেঞ্চে এ শুনানি চলছে।

এর আগে গতকাল বুধবার গাজীপুর নির্বাচন স্থগিত নিয়ে আওয়ামী ও বিএনপির মেয়র প্রার্থীর করা আবেদনের ওপর আপিল বিভাগে শুনানি হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু গতকাল সকালে নির্বাচন কমিশন (ইসি)’র পক্ষে আইনজীবী মো. ওবায়দুর রহমান (মোস্তফা) আদালতে নির্বাচন কমিশনের পক্ষে হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে আবেদন করার কথা বললে আদালত ‘নট টুডে’(আজকে নয়) আদেশ দেয়।

আগামী ১৫ মে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র, সাধারণ ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সাভারের শিমুলিয়া ইউনিয়নের ছয়টি মৌজা গাজীপুর সিটি করপোরেশনে অন্তর্ভুক্তির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের নেতা এবিএম আজহারুল ইসলাম সুরুজের করা এক রিটে হাইকোর্ট রোববার ওই সিটি নির্বাচন তিন মাসের জন্য স্থগিত করেন।

তদন্তের স্বার্থে কৌশল নিতেই পারি : তুরিন

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ মানবতাবিরোধী এক অপরাধীর সঙ্গে গোপন বৈঠক করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এই অভিযোগের বিষয়ে ফেসবুকে গতকাল দুপুরে দেওয়া এক স্ট্যাটাসে তুরিন আফরোজ লেখেন-

‘এই বিষয়ে আমার সুস্পষ্ট বক্তব্য : ১. আমি এখনো আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর পদে বহাল আছি। আমাকে কেউ বরখাস্ত করেনি।

২. আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল আইনে ৮(২) ধারা অনুযায়ী ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটরের একজন তদন্ত কর্মকর্তা হিসেবে কাজ করার এখতিয়ার রয়েছে। সুতরাং যে কোনো মামলায় তদন্ত করার এখতিয়ার আমার আছে। তদন্ত করতে গেলে নানা রকম কৌশল অবলম্বন করতে হয়। সুতরাং আমি তদন্তের স্বার্থে প্রয়োজনীয় কৌশল গ্রহণ করতে পারি।

৩. আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে আমি এ পর্যন্ত প্রসিকিউটর হিসেবে যা কিছুই করেছি, তা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ অবহিত ছিলেন।

৪. আমাকে নিয়ে সম্প্রতি যে অভিযোগ তোলা হয়েছে, তা সত্য নয়। যেহেতু বিষয়টি এখন ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ তদন্ত করে দেখছেন, তাই সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে এই মুহূর্তে বিষয়টি নিয়ে আমি কোনো মন্তব্য করতে চাই না। তদন্ত শেষ হলে আমি আমার বক্তব্য সর্বসম্মুখে প্রকাশ করব। আশা করি, সে পর্যন্ত আমার শুভাকাক্সক্ষী ও সমালোচকরা ধৈর্য ধরে অপেক্ষা করবেন।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *