থাকবে না : ডিএমপি কমিশনার

ঈদ উপলক্ষে কেউ যাতে অতিরিক্ত বাস ভাড়া বা চাঁদাবাজি করতে না পারে, সে জন্য ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) মোবাইল কোর্ট কাজ করছে বলে জানিয়েছেন

ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া। আজ বুধবার সকালে রাজধানীর সায়েদাবাদ বাস টার্মিনালে ঈদযাত্রার পরিস্থিতি পরিদর্শনে গিয়ে তিনি এই কথা বলেন।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, যারাই অতিরিক্ত ভাড়া নিচ্ছে, তাদের বিরুদ্ধে

আর্থিক জরিমানাসহ আইনি ব্যবস্থা নিচ্ছে ডিএমপি মোবাইল কোর্ট।

ঈদে ফাঁকা রাজধানীতে নিরাপত্তা কেমন থাকবে এমন প্রশ্নের জবাবে ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, আগের বছরের তুলনায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

যাদের রাজধানীতে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে, তাদের প্রতিষ্ঠানের সামনে অন্তত একজন নিরাপত্তারক্ষী রাখার আহ্বান জানান ডিএমপি কমিশনার।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, ‘ঢাকা মহানগরীতে কোনো চাঁদাবাজ থাকবে না। আমরা যদি থাকি, চাঁদাবাজ থাকবে না। চাঁদাবাজ যেই হোক, তার কোমরে রশি দিয়ে বিচারে সোপর্দ করা হয়েছে।

এই ব্যাপারে আমাদের অবস্থান জিরো টলারেন্স। পুলিশের পক্ষ থেকে আমাদের টহলকে অনেক জোরদার করব।

বিভিন্ন স্টার্টিং পয়েন্টে তল্লাশি চৌকি বসাব, চেকপোস্ট বসাব। বিভিন্ন ইম্পর্ট্যান্ট রাস্তাগুলোকে আমরা কোণ দিয়ে জিগ-জ্যাগ করে দেবো, যাতে সহজে আমরা নিয়ন্ত্রণ করতে পারি। এবং এই সিকিউরিটি গার্ড, পুলিশ, তল্লাশি সবকিছু মিলিয়ে আমরা একটি সমন্বিত নিরাপত্তা ব্যবস্থা তৈরি করব।’

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদীখান উপজেলায় প্রকাশক শাহজাহান বাচ্চুর হত্যাকারীদের তৃতীয় দিনেও চিহ্নিত করতে পারেনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

গত ১১ জুন ইফতারের আগ মুহূর্তে সিরাজদীখানের মধ্যপাড়া ইউনিয়নের পূর্ব কাকালদি গ্রামের তিন রাস্তার মোড়ে শাহজাহান বাচ্চুকে গুলি করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। ঘটনার তৃতীয় দিনেও পুলিশ কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

শাহজাহান বাচ্চু বিশাকা প্রকাশনীর স্বত্বাধিকারী ও মুন্সীগঞ্জ জেলা কমিউনিস্ট পার্টির  সাবেক সাধারণ সম্পাদক।

তিনি আমাদের বিক্রমপুর নামের একটি অনিয়মিত সাপ্তাহিক পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক। মুক্তচিক্তার লেখক শাহজাহান বাচ্চু বিভিন্ন ব্লগ ও ফেসবুকে লেখালেখি করতেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *