ব্রেকিং : ঢাকায় হটাৎ করে একি করলো বিএনপি !

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে রাজধানীতে বিক্ষোভ করেছে নেতাকর্মীরা।

বুধবার বিকেলে ঢাকা মহানগর উত্তরের দফতর সম্পাদক এবিএম রাজ্জাক স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে সমাবেশ করতে না দিয়ে পুলিশি বাঁধার প্রতিবাদে কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির উদ্যোগে থানায় থানায় বিক্ষোভ কর্মসূচি পালিত হয়।

বাড্ডা, ভাটারা ও রামপুরা থানার একটি যৌথ মিছিল বাড্ডার গুদারা ঘাট থেকে শুরু করতে গেলে পুলিশি বাধায় তা পণ্ড হয়ে যায়।

পল্লবী থানা বিএনপির একটি মিছিল কমিশনার সাজ্জাদ ও বুলবুল মল্লিকের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলটি অনিক প্লাজার সামনে থেকে পূরবী সিনেমা হলের সামনে গেলে পুলিশি তৎপরতায় ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। মিছিলে আরও উপস্থিত ছিলেন মাহবুবুল আলম মন্টু, আলমাস হোসেন খোকন, সোহরাব হোসেন মোল্লা, আমান উল্লা আমানসহ থানা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

মোহাম্মদপুর থানা বিএনপির একটি মিছিল ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সোহেল রহমানের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন। মিছিলটি আসাদগেট থেকে টাউন হলের সামনে গিয়ে শেষ হয়।

রূপনগর থানা বিএনপির একটি মিছিল আ. আউয়াল ও ইঞ্জি. মজিবুর রহমানের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে আরও উপস্থিত ছিলেন মো. মজিবুল হক, মো. আমজাদ হোসেন মোল্লা, এস, মো. সোহেল রানা, মো. কামাল হোসেন, মো. জালাল হাওলাদার, মো. নজরুল ইসলাম শাহীন, মো. নাছির, মো. গনি ফকির, মো. খোকন, সিপু মোল্লা, আলাউদ্দিন, মো. দীন ইসলাম, এমরান মোল্লা, মো. হাদিউল ইসলাম রাজিব, মো. আরিফুল ইসলাম, মো. রাফি, মো. কাউসারসহ থানা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতারা।

মিরপুর ও শাহআলী থানা বিএনপির একটি যৌথ বিক্ষোভ মিছিল ১০ নম্বর সেনপাড়া পর্বতা থেকে শুরু হয়ে আল হেলাল হাসপাতালের সামনে এসে শেষ হয়। ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সহ-সভাপতি ফেরদৌসি আহমেদ মিষ্টি ও বিএনপি নেতা আবুল হোসেন আব্দুলের নেতৃত্বে মিছিলে থানা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা মিছিলে উপস্থিত ছিলেন।

খিলক্ষেত থানা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল হাজী এস এম ফজলুল হক ফজলুর নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে উপস্থিত ছিলেন প্রফেসর আখতারুজ্জামান আক্তার, সোহরাব খান স্বপন, সি এম আনোয়ার হোসেন, জহির উদ্দিন বাবু, রাসেল বাবু, পান্না ইয়াসমিন, আসাদুজ্জামান জিসান, মজনু দর্জী, সোলেমান, শহিদুল ইসলাম খোকন, মাহফুজুর রহমান বাবু, সোহেল রানা বাবু, মো. রানা, নুরুল আফসার নাসিরসহ খিলক্ষেত থানা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা।

তুরাগ থানা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল অধ্যক্ষ আবু তাহের খান আবুলের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন- ওমর আলী, মিসির, আব্দুল আউয়াল, তাজুল ইসলামসহ বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের অন্যান্য নেতারা। মিছিলটি উত্তরা ১০নং সেক্টর থেকে শুরু হয়ে কামারপাড়ায় শেষ হয়।

আদাবর থানা বিএনপির একটি বিক্ষোভ মিছিল ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সহ-সভাপতি আবুল হাশেম ও বিএনপি নেতা কামাল সরকারের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়।

দক্ষিণখান ও উত্তরখান থানা বিএনপির একটি যৌথ বিক্ষোভ মিছিল পুলিশি হামলায় পণ্ড হয়ে যায়।

এছাড়াও তেজগাঁও, উত্তরা পশ্চিম, উত্তরখান, ভাষানটেক, ক্যান্টনমেন্ট, বনানী, গুলশান থানায় বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

অপরদিকে, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের উদ্যোগে শাহবাগ, মতিঝিল, যাত্রাবাড়ী, চকবাজার, কলাবাগান, কামরাঙ্গীর চর, কদমতলী, সূত্রাপুর, গেন্ডারিয়া, বংশাল, ডেমরা, শ্যামপুর, লালবাগ কোতয়ালী থানা এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল হয় বলে দক্ষিণের দফতর সম্পাদক সাইদুর রহমান মিন্টু স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *