ব্রেকিং ব্রেকিং : খালেদা জিয়াকে নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে যা করলেন খালেদার ভাই

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করাতে পরিবারের পক্ষ থেকে আবেদন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১২ জুন) স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের কাছে এই আবেদনটি করেন খালেদা জিয়ার ছোট ভাই শামীম ইস্কানদার।

আবেদনপত্রে খালেদা জিয়ার ভাই লিখেছেন, ‘বর্তমানে আমার বড় বোন খালেদা জিয়াকে ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডে অবস্থিত কেন্দ্রীয় কারাগারে রাখা হয়েছে।

তিনি দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন অসুখে আক্রান্ত। কারা অভ্যন্তরে তিনি প্রয়োজনীয় চিকিৎসার সুযোগ পাচ্ছেন না। ফলে দীর্ঘ কারাবাসে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে।’

আবেদনপত্রে আরও বলা হয়, ‘‘গত ৯ জুন কারা কর্তৃপক্ষের অনুমতি সাপেক্ষে চারজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক কারা অভ্যন্তরে তার (খালেদা জিয়া) শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেন।

উক্ত চিকিৎসকরা জানেয়েছেন যে, খালেদা জিয়া গত ৫ জুন ‘মাইল্ড স্ট্রোকে’ আক্রান্ত হন। ফলে ভবিষ্যতের জন্য এ ধরনের বিষয় বড় ধরনের ঝুঁকির পূর্বাভাস বহন করছে।

তাকে অনতিবিলম্বে ঢাকার ‘ইউনাইটেড হাসপাতালে’ ভর্তি করে প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও চিকিৎসা প্রদান করা জরুরি। তাই খালেদা জিয়ার এ ধরনের সব চিকিৎসা ব্যয় আমরা নিজ/পারিবারিকভাবে বহন করবো।’’

‘এ কারণে খালেদা জিয়াকে ঢাকার ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করে প্রয়োজনীয় উন্নত চিকিসা প্রদানের অনুমতির জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি।’ বলে আবেদন পত্রে উল্লেখ করা হয়।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘আগামী নির্বাচন চ্যালেঞ্জিং নির্বাচন। কিন্তু আমাদের বিশ্বাস, আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধ থাকলে আমরা বিজয়ের মাস ডিসেম্বরে ঐক্যের সোনালি ফসল ঘরে তুলবো।’

সোমবার (১১ জুন) বিকালে রাজধানীর নিউ ইস্কাটনে লেডিস ক্লাবে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস উপলক্ষে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভা, দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।

শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবসের পটভূমি তুলে ধরে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সব কথা বলতে চাই না।

নেতাদের অনেকেই যে সাহসটা দেখাতে পারেননি, সেই সাহস দেখিয়েছেন আওয়ামী লীগের কর্মীরা এবং এই কর্মীরাই ২০০৮ সালের নির্বাচনে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দলের বিজয়কে সুনিশ্চিত করেছেন।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *